Thursday, December 2, 2021
Homeখেলাভানিন্দু হাসারাঙ্গা কার্যকর হতে পারেননি-flashnewsbd

ভানিন্দু হাসারাঙ্গা কার্যকর হতে পারেননি-flashnewsbd

লেগ স্পিন খেলার ধরন আর অতীতের নানা পরিসংখ্যানেই লুকিয়ে আছে ভয়ের কারণ। বেশিরভাগ ব্যাটসম্যানই বল পড়তে পারেন না হাত থেকে, চেষ্টা করেন পিচ করার পর বুঝে নিতে। অনেক সময়ই সফল হয় না এই কৌশল। এর মাশুল দিতে হয় উইকেট হারিয়ে। আবু ধাবিতে বুধবার বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের আরেকটি পরীক্ষা নেবেন ইংল্যান্ডের রশিদ।

আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে রশিদ এখন বিশ্বের চার নম্বর বোলার। ভরসায় তিনি ইংল্যান্ডের এক নম্বর। এবার বিশ্বকাপের শুরুটাও তার হয়েছে দুর্দান্ত।

শিরোপাধারী ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বিধ্বস্ত করে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করে ইংল্যান্ড। গত শনিবারের ম্যাচে ক্যারিবিয়ানদের স্রেফ ৫৫ রানে গুঁড়িয়ে দেয় তারা। শুরুর দারুণ বোলিং আর চমৎকার ক্যাচে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মইন আলি। তবে বড় অবদান ছিল রশিদেরও। এই লেগ স্পিনার ছিলেন রীতিমত দুর্বোধ্য। ২.২ ওভারে মোটে ২ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট!

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে কম রান দিয়ে ৪ বা এর বেশি উইকেট নেওয়ার রেকর্ড গড়া রশিদের কিছু ডেলিভারি ছিল সত্যিই ‘আনপ্লেয়েবল।’ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করা বাংলাদেশের জন্য তিনি হতে পারেন সবচেয়ে বড় ধাঁধা ও বাধা।

রশিদ খানের মতো সফলরা তো বটেই, অনেক সময় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আনকোরা লেগ স্পিনাররাও ভোগায় বাংলাদেশকে। বিশ্বকাপ ও এর প্রস্তুতি পর্বেও হয়েছে তেমন অভিজ্ঞতা। গত অগাস্টে ঢাকায় মিচেল সোপেয়সন কঠিন পরীক্ষায় ফেলেন স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের। অস্ট্রেলিয়ান লেগ স্পিনার ২ ম্যাচে ৬ ওভার বোলিং করে ২৬ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ক্রিস গ্রিভসের লেগ স্পিনে দিক হারিয়ে শেষ পর্যন্ত স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে যায় মাহমুদউল্লাহর দল।

নিশ্চিতভাবেই তাদের চেয়ে অনেক বেশি চ্যালেঞ্জ নিয়ে হাজির হবেন রশিদ। তার বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা কিছুটা আছে সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিমদের। ২০১৬ সালে বাংলাদেশ সফরে ইংল্যান্ডের হয়ে রশিদ খেলেছিলেন দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে। দুই টেস্টে নিয়েছিলেন ৭ উইকেট, ৩ ওয়ানডেতে ১০টি।

এরপর কেবল একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়েছে রশিদের বিপক্ষে, ২০১৯ বিশ্বকাপে। সেটাতে তিনি নেন ১ উইকেট। ওয়ানডেতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৪ ম্যাচে ১৯ গড়ে তার উইকেট ১১টি। ওভারপ্রতি রান দিয়েছেন ৫.৩৫, স্ট্রাইক রেট ২১.২০। 

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments